অনলাইনে টাকা আয় করার 5 টি সহজ উপায় | Online Taka Income Korar Upay

রোজ Google এ Online Taka Income Korar Upay হাজারো বার সার্চ করা হয়। আর এগুলো সার্চ করে স্টুডেন্ট অথবা বাড়িতে বসে মোবাইল বা কম্পিউটার এর মাধ্যমে কাজ করে কিছু টাকা আয় করতে চায় সেই সব মানুষেরা। আর এই প্রবলেমের সমাধান করতেই আমাদের আজকের ব্লগ পোস্ট অনলাইনে টাকা আয় করার 5 টি সহজ উপায়

Online Taka Income Korar Upay

ছাত্র জীবনে অনেকের মনেই প্রশ্ন আসে পড়াশোনার পাশাপাশি যদি স্মার্টফোন বা কম্পিউটার দিয়ে বাড়িতে বসে অনলাইনে কাজ করে আয় করা যায়। তাহলে অন্তত নিজের হাত খরচ তোলা যায়।

আর এই প্রশ্নের জেরেই আমরা খুঁজতে থাকি অনলাইনে কী কাজ আছে যেটা করে বাড়িতে বসে ইনকাম করা যায়।

এর সমাধান করতে আমরা নিয়ে এসেছি অনলাইনে করা যায় এমন 5 টি genuine সহজ কাজ। যেগুলো করলে আপনি আজ থেকেই ইনকাম শুরু করে দেবেন।

সেই কাজ গুলো কি সেগুলো জানার আগে অনেকের মনেই প্রশ্ন আসতে পারে অনলাইন কাজ করে আদৌ কী টাকা আয় করা সম্ভব? আদৌ কী কাজ করা টাকা আমি হাতে পাবো? এই সব প্রশ্নের উত্তর পেতে পোষ্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

অনলাইনে টাকা আয় করা কী সম্ভব

সহজ কথায় হ্যাঁ সম্ভব, 2022 সালে এই ইন্টারনেটের যুগে অনলাইনে এমন অনেক কাজ আছে যেগুলো করে মানুষ টাকা আয় করছে। কেউ কেউ আবার পার্ট টাইম কাজ হিসেবে শুরু করে এখন সেটাকে ফুল টাইম কাজ হিসেবে করে যাচ্ছে।

উদাহরণ স্বরূপ আপনি কিরণ দত্ত aka The Bong Guy এর নাম তো শুনেছেন! বাংলার সবচেয়ে বড় ইউটিউবার। সে কিন্তু ইউটিউব থেকে টাকা আয় করছে আর সেটাও কিন্তু অনলাইন কাজের মধ্যেই পরে।

নিজস্ব অভিজ্ঞতা ও প্রমাণ

আমি নিজে 2019 সাল থেকে অনলাইনে ব্লগিং ফিল্ডে কাজ করছি। এই তিন বছরে আমি ব্লগিং এর সম্বন্ধে একটু একটু নিজের অভিজ্ঞতা বারিয়ে তুলেছি আর হ্যাঁ আমি আমার কাজ ভালোবাসি। বাড়িতে বসে মোবাইল বা কম্পিউটার এর মাধ্যমে টেনশন ফ্রি হয়ে কাজ করি আর যা আয় হয় সেটা দিয়ে নিজের হাত খরচ তো চলে যায় আবার কিছু টাকা সঞ্চয় করেও রাখতে পারি।

Earning Proof

আরো পড়ুন – অনলাইন টাকা ইনকাম করার অ্যাপ (2022)

অনলাইনে টাকা আয় করার 5 টি উপায়

2022 সালে অনলাইন থেকে টাকা আয় করার জন্য সবচেয়ে সহজ পাঁচটি উপায় হচ্ছে-

  • ব্লগিং (Blogging)
  • ইউটিউব (Youtube)
  • অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং (Affiliate Marketing)
  • স্পনসরশিপ (Sponsorship)
  • অনলাইন রিসেলিং (Online Reselling)

এই পাঁচটির মধ্যে যেই কাজটি আপনি শুরু করতে চান তার আগে আপনাকে মনে রাখতে হবে কোন কাজ কিন্তু সহজ নয়। এমনটা না যে কাজ শুরু করলেই শুয়ে শুয়ে টাকা পেয়ে যাবেন। আপনাকে আপনার কাজের প্রতি দৃঢ় ও ধৈর্যশীল হতে হবে তাহলেই আপনি তার ফল পাবেন।

1. ব্লগিং করে টাকা আয়

বর্তমানে অনলাইন কাজ হিসেবে ব্লগিং (Blogging) এর প্রবণতা বেরেই চলেছে। কারণ এতে ভবিষ্যৎ খুবই উজ্জ্বল তবে এটাকে শুরুতেই ফুল টাইম কাজ হিসেবে শুরু করলে হবেনা। আপনি যদি পড়াশোনার বা কোন কাজের পাশাপাশি কিছু এক্সট্রা উপার্জন করতে চান অথবা বাড়িতে বসে কোন কাজ করতে চান তাহলে ব্লগিং আপনার জন্য বেস্ট।

সংক্ষিপ্ত কথায় ব্লগিং বলতে বোঝায় নির্দিষ্ট কোন বিষয় নিয়ে লেখালেখি করা। ব্যাক্তিগত জীবনের অভিজ্ঞতা, রান্নার টিপস, পড়াশোনা বিষয়ে আলোচনা, ভ্রমণ অভিজ্ঞতা, ইত্যাদি বিষয়ে আপনি যদি লিখতে পারেন। তাহলে একটি ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করে এক্ষুনি ব্লগিং শুরু করে দিন।

আমি নিজেও গত তিন বছর ধরে ব্লগিং করছি আর সেখান থেকে নিয়মিত ইনকাম করছি। আপনি যদি জানতে চান কীভাবে ব্লগিং শুরু করবেন, কীভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন, কীভাবে পোস্ট লিখবেন, ব্লগিং এর সম্বন্ধে বিস্তারিত জানতে নীচে কমেন্ট করো। তাহলে ব্লগিং এর A to Z Tutorial বাংলা ভাষায় আমাদের ওয়েবসাইটে শেখানো হবে।

আরো পড়ুন – 5 টি সেরা Online Taka Income Apps in 2022

2. ইউটিউব থেকে টাকা আয়

ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে জনপ্রিয় হয়ে ওঠার ইচ্ছে তো অনেকেরই হয়। আবার যদি ইউটিউব সেই ভিডিও আপলোড করার জন্য টাকা দেয় তাহলে তো ইচ্ছেটা দ্বিগুন হয়ে যায়।

হ্যাঁ ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে টাকা ইনকাম করা সম্ভব। একটা ইউটিউব চ্যানেল থেকে অনেকভাবেই টাকা আয় করা যায় কিন্তু যেটা অফিসিয়াল মাধ্যম সেটা হল গুগল অ্যাডসেন্স (AdSense)। সহজ ভাষায় বুঝতে গেলে অ্যাডসেন্স আপনার ইউটিউব ভিডিওর ওপর বিজ্ঞাপন দেখাবে আর যখন কেউ সেই বিজ্ঞাপনে টাচ/ক্লিক করবে আপনি টাকা পাবেন।

3. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয়

ইন্টারনেট থেকে টাকা আয় করার অন্যতম একটি উপায় হল অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং। অনেক জনপ্রিয় ইউটিউবাররাও অ্যাফিলিয়েট লিংক তাদের ভিডিওর ডেসক্রিপশন বক্সে দেয় ও সেখান থেকে টাকা আয় করে।

সহজ ভাষায় অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হচ্ছে, Amazon ও Flipkart এর মত অনলাইন Ecommerce ওয়েবসাইট গুলি তাদের প্রোডাক্ট বিক্রি করার জন্য নির্দিষ্ট ID বা Username যুক্ত একটি লিংক প্রদান করে। আপনি সেই লিংকটাকে শেয়ার করলে কেউ যদি সেই লিংকে টাচ করে প্রোডাক্টটি কেনে তাহলে সেই প্রোডাক্টের মুল্যের কিছুটা অংশ আপনি পাবেন।

তবে এর জন্য আপনার কাছে বিশাল পরিমাণে ফলোয়ার বা সাবস্ক্রাইবার থাকলে ভালো হয়।

4. স্পনসরশিপ এর মাধ্যমে আয়

কোন ব্যাক্তি যদি তার প্রোডাক্ট বা ইউটিউব চ্যানেল প্রোমোট করাতে চায়। তখন সেই ব্যাক্তি টাকার বিনিময়ে ইউটিউব ভিডিও বা ব্লগ পোস্ট স্পনসর করতে পারে। এর বিনিময়ে আপনি আপনার ইউটিউব ভিডিও বা ব্লগ পোস্টে তার প্রোডাক্ট বা ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করার কথা আপনার viewers দের বলবেন।

আপনার কাছে যদি অনেক সাবস্ক্রাইবার যুক্ত Youtube Channel বা Facebook, Instagram এ অনেক ফলোয়ার থেকে থাকে তাহলে আপনি স্পনসরশিপ এর মাধ্যমে আয় করতে পারেন।

5. অনলাইন রিসেলিং করে আয়

ইন্টারনেটে এমন অনেক ওয়েবসাইট বা অ্যাপস আছে যেখান থেকে আপনি অনলাইন রিসেলিং করে টাকা আয় করতে পারেন। কিছু জনপ্রিয় ও বিশ্বস্ত অনলাইন রিসেলিং অ্যাপস হল-

  • Meesho
  • Shop101
  • GlowRoad

এই অ্যাপস গুলো থেকে প্রোডাক্ট এর ছবি আপনাকে Whatsapp, Facebook Groups এ শেয়ার করতে হবে। কেউ যদি সেই প্রোডাক্ট কিনতে আগ্রহী থাকে, আপনাকে তার হয়ে এই অ্যাপ এর মাধ্যমে সেই অর্ডার বুক করতে হবে। অর্ডার বুকিং এর সময় আপনি আপনার লাভের টাকা যোগ করে Margin এ বসাবেন। সেই মুল্য যেই ব্যাক্তি প্রোডাক্ট কিনবে তাকে Pay করতে হবে।

অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে কী প্রয়জন

আপনি যদি অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে চান তবে এই জিনিস গুলি আপনার থাকা আবশ্যিক-

  1. স্মার্টফোন/কম্পিউটার/ল্যাপটপ
  2. ভালো ইন্টারনেট কানেকশন
  3. কাজের প্রতি Consistent থাকতে হবে
  4. ধৈর্য রাখতে হবে

সর্বোপরি মনে রাখতে হবে পরিশ্রম ছাড়া টাকা আয় করা সম্ভব নয়।

FAQs

Q1. অনলাইনে টাকা আয় করতে কত সময় লাগে?

Ans. এর কোন নির্দিষ্ট সময় নেই, আপনি যদি একটা ইউটিউব চ্যনেল খোলেন তাহলে সেটায় বিজ্ঞাপন দেখানোর আগে ইউটিউবের কিছু নিয়ম আপনাকে পূরণ করতে হবে এবং ব্লগিং এর ক্ষেত্রেও একই নিয়ম কার্যকরী। কিন্তু আপনি যদি অনলাইন রিসেলিং বা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করেন তবে সেই প্রোডাক্ট যেই মুহূর্তে বিক্রি হবে আপনি সেই সময় দিয়েই টাকা আপনার অ্যাকাউন্টে পেয়ে যাবেন।

Q2. অনলাইন থেকে কত টাকা আয় করা যায়?

Ans. অনলাইনে টাকা আয় করার নির্দিষ্ট কোন সীমা নেই, মেনে চলুন ইন্টারনেট থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করা যায়। তবে সম্পূর্ণটাই আপনার কাজের পরিশ্রম ও দক্ষতার উপর নির্ভর করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.